৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ১৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি| রাত ৮:৩৫| বর্ষাকাল|
Title :
হত্যা-লুটপাট যারা চালিয়েছে, যেই হোক শাস্তি পাবে: প্রধানমন্ত্রী গাইবান্ধায় মিছিল থেকে আ.লীগের কার্যালয় অফিস ভাঙচুর,মোটরসাইকেলে আগুন পবিত্র আশুরার মহিমায় সকলের জীবন হোক কল্যাণময়- জননেতা তারেক শামস খান হিমু নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীরা পুলিশকে আহত ও মোটরসাইকেল ভাঙচুর ঠাকুরগাঁওয়ে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ! ভূরুঙ্গামারী উপশাখায় আই এফ আই সি ব্যাংকের মধুমাস উৎসব পালিত বিরামপুরে উপজেলা প্রশাসনের আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত বালিয়াডাঙ্গীতে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত নাগরপুর উপজেলা কিন্ডারগার্টেন সমিতির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বৃত্তিপ্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

বিশ্ব প্রবীণ দিবস

শামীম তালুকদার, বিভাগীয় প্রধান, ময়মনসিংহ
  • Update Time : শুক্রবার, অক্টোবর ১, ২০২১,
  • 132 Time View

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ১৯৯০ সালের ১৪ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সাধারণ সভার সিদ্ধান্তক্রমে ১৯৯১ সাল থেকে প্রতি বছর ১অক্টোবর আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস পালিত হচ্ছে।পরবর্তীতে জাতিসংঘ ১৯৯৯সালকে ঘোষণা করে আন্তর্জাতিক প্রবীণ বর্ষ।১৯৮২ সালে জাতিসংঘের ও সমর্থিত প্রবীণ সংক্রান্ত ভিয়েনা আন্তর্জাতিক কর্ম পরিকল্পনা অনুসরণে এই দিবস ঘোষণা করা হয়। বিশ্বব্যাপী প্রবীণ জনগোষ্ঠীর প্রতি সচেতনতা সহ তাদের মানবিক ও সম্মানজনক অধিকার সংবরণই দিবসটির মূল উদ্দেশ্য। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর সর্বত্র দিবসটি পালিত হয়।
প্রবীণত্ব মানব জীবনের শেষ অধ্যায়।প্রবীণরা স্বভাবতঃই অন্যান্যদের মতো মানবিক ও মৌলিক অধিকার প্রাপ্য।বরং শ্বাশত ভাবে অন্যান্যদের চেয়ে বেশি মর্যাদা ও সুযোগ -সুবিধা প্রাপ্তির দাবিদার।তারা পুরোটা জীবন ধরে ও কর্মময় তৎপরতা দিয়ে নিজ নিজ পরিবার গঠনে ও উন্নয়নে এবং সমাজ ও জাতির সার্বিক অগ্রগতি প্রক্রিয়ায় স্ব-স্ব পেশায় অক্লান্ত ভাবে কাজ করেন।জাতীয় জীবনেও রাখেন তারা নানামুখি অবদান। কিন্তু দুঃখের বিষয় জীবনের শেষ দিনগুলোতে তারা হয়ে পড়েনঅসহায়,গুরুত্বহীন, সমাজ ও সংসারের বোঝা, অবহেলার পাত্র। মুখোমুখি হন নানাবিধ আর্থ-সামাজিক স্বাস্থ্যগত ও মানসিক সমস্যার।নিদারুণভাবে বঞ্চিত হন তারা তাদের মৌলিক মানবাধিকার থেকে।বিষময় হয়ে উঠে প্রবীণের জীবনের শেষ পর্ব।এই অবস্হা রীতিমতো অবিচার। এ থেকে উত্তরণ প্রয়োজন। প্রয়োজন মানব জীবনের শেষ অধ্যায়কে সফল, সার্থক ও স্বাচ্ছন্দ্য করা।নতুবা প্রবীণরা তাদের জীবনের শেষ অধ্যায়কে অভিশপ্ত মনে করে বিদায় নেবে এই পৃথিবী থেকে।এটা তার উত্তরসূরী সমাজের ওপর ফেলবে অভিশাপের ছায়া।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category