১৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ| ১লা জুন, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ| ১২ই জিলকদ, ১৪৪৪ হিজরি| সন্ধ্যা ৬:২২| গ্রীষ্মকাল|
Title :
টাঙ্গাইলে প্রশংসায় ভাসছে জননেতা তারেক শামস্ খান হিমুর ব্যতিক্রমী প্রচারণা টাংগাইলের নাগরপুরে তীব্র গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন বারবাজার ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা করেন আবুল কালাম আজাদ পূর্বধলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার আসন্ন সংসদ নির্বাচনে প্রচারণা এবং জনপ্রিয়তার শীর্ষে জান্নাতুল ফেরদৌস আরা ঝুমা তালুকদার কোলা ইউনিয়ন পরিষদে যক্ষা ম্যালেরিয়া কোভিড-১৯ বিষয় নিয়ে আলোচনা সভা মদনে হাতি দিয়ে চলছে রাস্তায় চাঁদাবাজি কিশোরীর স্মরণে ১৯৭১ সন -মুক্তিকামী মানুষ লড়ছে -স্বাধীনতার জন্যে আর হানাদার দানব পিশাচ ঘুরছে খুন ধর্ষণ রক্ত ঝরাতে টাংগাইল জেলা আ’লীগের নেতার মৃত্যুতে নাগরপুর উপজেলা আ’লীগের শোক তারাকান্দায় জিয়াউর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত

ঘুরতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরল তিন ভাইবোন

ওসমান গনি গজারিয়া প্রতিনিধিঃ
  • Update Time : রবিবার, ডিসেম্বর ২৬, ২০২১,
  • 47 Time View

মুন্সিগঞ্জর গজারিয়া উপজেলা
বান্দরবান ঘুরতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরল গজারিয়া উপজেলা বালুয়াকান্দি এলাকার জ‌হিরুল ইসলামের ছেলে, মেয়ে ও তাদের খালাতো বোন।
মারা যাওয়া , আহনাফ ও আদনীন নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থেকে বান্দরবানে বেড়াতে গিয়েছিলেন খালাতো, মামাতো ভাইবোন ও আত্মীয়-স্বজনসহ ১০ জন। সবার বয়স ১৭ থেকে ২৫-এর মধ্যে। দুদিন আনন্দ-উল্লাসে বান্দরবানের রূপ উপভোগ করলেও তৃতীয় দিনে এসে বাধে বিপত্তি। রোয়াংছড়ির তারাছার বাধরা ঝরনার পাশে সাঙ্গু নদী‌তে গোসলে নেমে লাশ হলেন তাদের তিন জন। নদীতে ডুবে যাওয়া খালাতো ভাইকে বাঁচাতে গিয়েই ওই তিন জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যায়।

জানা গেছে, বুধবার (২২‌ ডিসেম্বর) ফতুল্লা থেকে তারা বান্দরবান যান। ওঠেন শহরের হো‌টেল দ্য প‌্যারাডাইসে। প্রথম দুদিন মেঘলা, নীলাচল, নীল‌গি‌রিসহ বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে ঘুরেছেন। শুক্রবার (২৪ ডিসেম্বর) রাতে তা‌দের ফতুল্লা ফেরার কথা। সকালে হো‌টে‌লে ব্যাগ, কাপড় গু‌ছি‌য়ে বের হন নৌকাভ্রমণে। শহরের ক‌্যা‌চিংঘাটা থেকে শ‌্যা‌লো ইঞ্জিনের নৌকা নি‌য়ে চলে যান বেতছড়ার বাধরা ঝরনায়।
সেখানে ঝরনার মোহনায় নদীর স্বচ্ছ পানি দেখে সাঁতার না জানা সত্ত্বেও আট জন নেমে পড়েন। দুই জন নদীর পাড়ে ছিলেন। প্রায় ৪০ মিনিট নদী‌তে গোসল ক‌রে সাত জন তীরে এলেও রয়ে যান খালাতো ভাই তা‌নিশ। তানিশকে ডুবতে দেখে বাঁচা‌তে নেমে পড়েন সবাই। বহু কষ্টে তা‌কে টেনে তানিশকে তুললেও ডুবে যান মো. আহনাফ আকিব, তার ছোট বোন মারিয়াম আদ‌নীন ও তাদের খালা‌তো বোন মারিয়া ইসলাম। প‌রে মারিয়াকে উদ্ধার ক‌রে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নি‌লে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। নিখোঁজ থেকে যান আহনাফ আকিব ভাইবোন। শনিবার পুলিশ, সেনাবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীরা তাদেরও লাশ উদ্ধার করেছেন।

সন্তানদের বিপদের কথা শুনে শুক্রবার নারায়ণগঞ্জ থেকে বান্দরবান ছুটে যান সবার বাবা-মা। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আদ‌নীনের ও দুপুর দেড়টার সময়‌ আহনাফের লাশ উদ্ধার করা হয়। ছে‌লেমে‌য়ের লাশ উদ্ধারের পর আর্তনাদ শুরু করেন বাবা জ‌হিরুল ইসলাম ও মা সাইদা শিউলী।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category