১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ১৮ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি| বিকাল ৫:৪৮| গ্রীষ্মকাল|

শীতে ঠাণ্ডা পানিতে মুখ পরিষ্কার করা জরুরি কেন?

ঈশ্বরগন্জ উপজেলা প্রতিনিধি -মোঃ সুমন মিয়া
  • Update Time : রবিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০২১,
  • 73 Time View

শীতে ঠাণ্ডার ভয়ে অনেকেই নিয়মিত গোসল করেন না। এমনকি ঘুম থেকে উঠে মুখ ধোয়ার জন্যও ঠাণ্ডা পানি এড়িয়ে চলেন। যেকোনো কাজেই গরম পানি ব্যবহার করার চেষ্টা করেন। অথচ এই বিষয়ে বিশেষজ্ঞের মতামত ভিন্ন।

বিশেষজ্ঞের পরামর্শ হলো, শীত যতই পড়ুক, ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধোয়া বন্ধ করবেন না। বিভিন্ন ডার্মাটোলজিকাল স্টাডি অনুসারে, আপনি যদি সকালে ঘুম থেকে উঠে এবং সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে ঠাণ্ডা পানিতে মুখ পরিষ্কার করেন তবে ত্বকের সৌন্দর্য দ্রুত বৃদ্ধি পাবে। সেইসঙ্গে দূরে থাকবে ত্বকের নানা অসুখ।

মূলত ঠাণ্ডা পানির ঝাপটায় আমাদের লোমকূপে জমে থাকা ময়লা ও দূষিত উপাদান দূর হয়ে যায়। সেইসঙ্গে ত্বকের অভ্যন্তরে কিছু রাসায়নিকের ক্ষরণ বেড়ে যায়। যে কারণে ত্বক হয়ে ওঠে উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত। চলুন এবার জেনে নেয়া যাক কেন শীতেও ঠাণ্ডা পানিতে মুখ পরিষ্কার করা জরুরি-

ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে

ত্বককে টানটান রাখতে এবং প্রাণবন্ত করে তুলতে ঠাণ্ডা পানির বিকল্প নেই। যখন আপনি ঠাণ্ডা পানিতে মুখ পরিষ্কার করবেন, তখন ত্বকে রক্তের প্রবাহ বেড়ে যাবে। এর ফলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে, সেই সঙ্গে কমবে বলিরেখার প্রভাব। আপনি যদি নিয়মিত ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে থাকেন, তবে সহজে মুখে বয়সের ছাপ পড়বে না।

আরো পড়ুন: সঙ্গীর যেসব খারাপ অভ্যাস মেনে নিয়ে ডেকে আনছেন বিপদ

ফোলাভাব কমায়

সকালে উঠে ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধোয়ার অভ্যাস আছে নিশ্চয়ই? এর বড় কারণ হলো আমরা যখন ঘুমিয়ে থাকি, তখন আমাদের শরীরে নতুন কোষের উৎপাদন হয়। এ কারণে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর মুখে ফোলাভাব লক্ষ্য করবেন। এমন ফোলা মুুখ নিয়ে নিশ্চয়ই বাইরে চলে যাওয়া যায় না! তাই এই ফোলাভাব কমাতেই মুখ পরিষ্কার করতে হবে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে। এতে শুধু ফোলাভাবই কমবে না, সেইসঙ্গে ত্বক চনমনে হয়ে উঠবে। ত্বকের স্বাস্থ্য আরো ভালো হবে।

দূষণ থেকে রক্ষা করে

শহুরে বাতাসে মিশে থাকে নানা দূষিত পদার্থ। সেগুলো প্রতিনিয়ত আমাদের ত্বকের ক্ষতি করে চলছে। সারাদিন নানা দূষিত পদার্থের আক্রমণে আমাদের ত্বক হয়ে পড়ে নির্জীব। তাই ত্বকের হারানো সৌন্দর্য ফিরিয়ে আনার কাজে সাহায্য করতে পারে ঠাণ্ডা পানি। বাইরে থেকে ফিরেই ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নেবেন। এতে ত্বকে জমে থাকা সব দূষিত পদার্থ বের হয়ে যাবে। ফলে কমবে ত্বকের ক্ষতি হওয়ার ভয়। মুখের সৌন্দর্যও বাড়বে অনেকটাই।
ব্রণের সমস্যা দূর করে

আপনি যদি নিয়মিত ঠাণ্ডা পানিতে মুখ পরিষ্কার করেন তাহলে ত্বকের প্রতিটি লোমকূপ অ্যাকটিভ হয়ে উঠবে। এতে ত্বকে ময়লা জমে থাকার ভয় থাকবে না। পাশাপাশি দূর হবে ব্রণ এবং ব্ল্যাকহেডসের মতো ত্বকের সমস্যা। কমে যাবে নানা ধরনের ত্বকের রোগের ভয়ও। সুতরাং বুঝতেই পারছেন, ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধোয়া কতটা জরুরি!

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category