১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ১৮ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি| বিকাল ৫:৫৬| গ্রীষ্মকাল|

নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠায় গাইবান্ধায় মোটরসাইকেল চালকের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযান: পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি মোঃ আল আমিন
  • Update Time : বুধবার, অক্টোবর ১৩, ২০২১,
  • 95 Time View

মানুষের সচেতনতার অভাবে গাইবান্ধায় সড়ক দুর্ঘটনার প্রবনতা দিন দিন বেড়েই চলছে। নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠা করতে উত্তরাঞ্চলের ৮ জেলার ন্যায় গাইবান্ধায় সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর অধিনে মোটরসাইকেলে হেলমেট বিহীন ও ৩ জন চালকের বিরুদ্ধে মাসব্যাপী বিশেষ অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার সকালে শহরে এক নম্বর ট্রাফিক মোড়ে গাইবান্ধা জেলা পুলিশ ও ট্রাফিক বিভাগের আয়োজনে হ্যান্ড মাইকে সচেতনতামূলক প্রচার প্রচারনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গাইবান্ধা জেলা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম।

পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন-নিরাপদ নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠা করতে উত্তরাঞ্চলের ৮ জেলার ন্যায় গাইবান্ধায় মোটর সাইকেলে হেলমেট বিহীনদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত হচ্ছে ও ৩ জন মোটরসাইকেল আরোহনকারী চালকের বিরুদ্ধে অভিযান জোরদার করা হয়েছে। হেলমেট বিহীন কেউ মোটর সাইকেল চালাতে পারবেনা। মামলা কিংবা জরিমানা মুখ্য উদ্দেশ্য নয়। মূলত মানুষকে সচেতন করতে এই অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। কোনক্রমেই ড্রাইভারের সাথে একজন সহযাত্রী ছাড়া মোটরসাইকেলের ৩ জন আরোহনকারী বহন করতে পারবে না।

তিনি আরও বলেন- আইনের ভয়ে নয় নিজের সন্তান ও পরিবারকে ভালবেসে হেলমেট পরিধান করে মোটরসাইকেল চালানোর নির্দেশ প্রদান করেন। সহযাত্রীর হেলমেট পরিধান নিশ্চিত করুন। গতি নিয়ন্ত্রণে রাখুন, সতর্ক থাকুন। ফিডার রোড থেকে মহাসড়কে ওঠার সময় ডানে-বামে দেখে নিন। স্ত্রী সন্তানকে নিয়ে বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল না চালানোর নির্দেশ দেন। মোটরসাইকেল চালানোর সময় মুঠোফোনে কথা বলবেন না। ট্রাফিক আইন মেনে চলুন।

সে সাথে পুলিশ কনস্টেবল প্রার্থী ও অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন- সামনের মাসে পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ পরিক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত পদে আগ্রহী অনেকেই অনলাইনে আবেদন করেছেন। কনস্টেবল পদে জন্য অনেক প্রার্থী বা অভিভাবক বিভিন্ন দালাল, বাটপার, প্রতারক শ্রেণীর লোকের সাথে আর্থিক লেনদেন উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন। কেউ কোন প্রকার কাউকে টাকা দিবেন না। স্বচ্ছতা মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগ করা হবে। কোন পলিটিক্যাল তদবির গ্রহণ করা হবে না।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- গাইবান্ধা ট্রাফিক ইনচার্জ নুর আলম সিদ্দিক, এ, টি, এস আই জসিম।

উপস্থিত ছিলেন- গাইবান্ধা সদর থানা অফিসার ইনচার্জ মাসুদুর রহমান, এ,এস আই আল আমিন, ট্রাফিক বিভাগের টি এস আই আসাদ, কনস্টেবল ইসমে আজম, ওয়ারেছ, বেলাল সহ অনেকে।

উল্লেখ্য, মাইকে প্রচার প্রচারনা শেষে রাস্তায় চলাচলকারী মানুষদের মাঝে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরন করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category